৫ বছরের জেল হতে পারে লুকা মদ্রিচের

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক : রিয়াল মাদ্রিদের মিডফিল্ডার লুকা মদ্রিচের বিরুদ্ধে মিথ্যা সাক্ষ্য ও কর ফাঁকির অভিযোগ উঠেছে।এমন অভিযোগ করেছে তারকা এ ফুটবলারের দেশ ক্রোয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় আদালত।আর অভিযোগ প্রমাণিত হলে পাঁচ থেকে ছয় বছরের জেল হতে পারে তার।

ক্রোয়েশিয়ার ফুটবল ক্লাব ডায়নামো জাগরেবের সাবেক সভাপতি দ্রাভকো মামিচের বিচারে মদ্রিচ মিথ্যা সাক্ষ্য দিয়েছিলেন বলে শুক্রবার অভিযোগ গঠন করেছে দেশটির প্রধান আইন কর্মকর্তার কার্যালয়।

তবে ক্রোয়েশিয়ার প্রচলিত রীতি অনুযায়ী অভিযোগপত্রে মদ্রিচের নাম উল্লেখ না করেই অভিযোগ গঠন হয়েছে। অভিযোগে মিথ্যা সাক্ষ্যের বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে ৩২ বছর বয়সী ক্রোয়েশিয়ান এই নাগরিককে অভিযুক্ত করা হয়েছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনসহ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, রিয়াল মাদ্রিদে তারকা মদ্রিচের বিপক্ষে এ অভিযোগ গঠন করা হয়েছে।

এর আগে ডায়নামো জাগরেবে ২০০৩ থেকে ২০০৮ পর্যন্ত খেলেছিলেন মদ্রিচ। পরে ক্রোয়েশিয়ার এ ক্লাব থেকে তিনি ইংলিশ ক্লাব টটেনহাম হটস্পারে যোগ দেন।আর ২০১২ সালে সেখান থেকে যোগ দেন রিয়াল মাদ্রিদে। 

ক্রোয়েশিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয় জানিয়েছে, গত বছরের জুনে দ্রাভকো মামিচসহ ডায়নামোর আরও তিন কর্মকর্তার বিপক্ষে মামলায় মিথ্যা সাক্ষ্য দেন এ মিডফিল্ডার। ডায়নামো অফিসিয়ালদের বিপক্ষে সেই মামলায় ২.২ মিলিয়ন ডলার কর ফাঁকির অভিযোগ আনা হয়েছিল। এ ছাড়া ক্লাবটি থেকে ১৯.১৯ মিলিয়ন ডলার পাচারের অভিযোগও ছিল তাঁদের বিপক্ষে।

এদিকে মদ্রিচ বা তার বর্তমান ক্লাব রিয়ালের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে এখনও কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

Print Friendly, PDF & Email