৯ বছর পর ফিরেই ম্যাচ সেরা ইংলিশ ক্রিকেটার

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক২০১০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি খেলেছিলেন। এরপর হিসেব করলে সময়টা পুরোপুরি ৯ বছর হয় না। হয়, ৮ বছর ৮ মাস। অর্থ্যাৎ পৌনে ৯ বছর। এর মধ্যে ৩৮৬টি ম্যাচ খেলেছে ইংল্যান্ড। এত দীর্ঘ সময়ে কত শত ক্রিকেটার হারিয়ে গেছেন ৯০ গজের খেলাটি থেকে। কিন্তু জো ড্যানলি আশ্চর্যরকম এক ধৈয্য ধরেছেন। তিনি অপেক্ষা করে গেছেন, আবার কবে ডাক পাবেন তিনি।

অবশেষে ডাক পেলেন এবং শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে ফিরেই স্পট লাইটটা নিজের দিকে টেনে নিলেন এই ইংলিশ ক্রিকেটার। দীর্ঘ সময় পর দলে ফিরেই হয়ে গেলেন ম্যাচ সেরা ক্রিকেটার। নিজের অপরিহার্যতা এভাবেই প্রমাণ করলেন এই ক্রিকেটার। ব্যাট হাতে ১৭ বলে ২০ রান এবং বল হাতে ৪ ওভারে ১৯ রান দিয়ে নিয়েছেন ৪ উইকেট।

জো ড্যানলির এমন অসাধারণ পারফরম্যান্সেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ৩০ রানের ব্যবধানে জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড। দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের কারণে ম্যাচ শেষে তাকেই সেরা হিসেবে বেছে নিলেন বিচারকরা।

২০০৯ সালের আগস্ট মাসে ওয়ানডে ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নাম লিখিয়েছিলেন জো ড্যানলি। তিনদিন পরে অভিষেক হয় টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটেও। ওয়ানডে ক্যারিয়ারটা দীর্ঘায়িত হয় তিন মাস। পরের বছরের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত খেলেন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট।

সে দফায় ৯টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ ও ৫টি সংক্ষিপ্ত সংস্করণের ক্রিকেট খেলার পর দলের বাইরে ছিটকে পড়েন অলরাউন্ডার জো ড্যানলি। ২০১০ সালের ফেব্রুয়ারিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে দুবাইতে পঞ্চম টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি খেলার পর দীর্ঘ ৮ বছর ৮ মাস আর জাতীয় দলের মুখ দেখা হয়নি ৩২ বছর বয়সী এই ক্রিকেটারের।

তবে হাল ছাড়েননি তিনি। খেলে গেছেন ঘরোয়া ক্রিকেটে, প্রমাণ করেছেন নিজেকে। সে সুবাদে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচের একাদশে জায়গা পেয়ে যান ড্যানলি। ফেব্রুয়ারি ২০১০ থেকে অক্টোবর ২০১৮ পর্যন্ত সময়ে মোট ৩৮৪টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে ইংল্যান্ড। এরপর আবার দলে ডাক পেলেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email