‘‌টেনিস বাবা’‌ টাইসন!

স্পোর্টস লাইফডেস্ক : গত ইউ এস ওপেন চলার সময় বার কয়েকই গ্যালারিতে দেখা গেছে তঁাকে। যা দেখে অনেকের মনেই প্রশ্ন জেগেছিল— প্রাক্তন হেভিওয়েট বক্সিং চ্যাম্পিয়ন কি তা হলে টেনিসে মজেছেন?‌ সেই প্রশ্নের উত্তর মিলেছে। ক্রীড়া সাময়িকী স্পোর্টস ইলাস্ট্রেটেডকে টাইসন জানিয়েছেন, আসলে টেনিসে মজেছেন তিনি। সেটির কারণ হল, তঁার ৭ বছরের মেয়ে মিলান টেনিস খেলে।

মিলানকে জকোভিচ–‌সেরেনাদের খেলা দেখাতেই গত ইউ এস ওপেনের সময় তাঁকে ফ্লাশিং মিডোয় নিয়ে এসেছিলেন। মেয়ের কারণে টেনিসের খেঁাজখবরও ভালই রাখেন। এতটাই যে, টেলিভিশনে রিও অলিম্পিকের বক্সিংও দেখেননি, কিন্তু মেয়েদের টেনিসের সোনা কে জিতল, সেটি ঠিকই জানেন!‌ টাইসনের সাক্ষাৎকার নেওয়া সাংবাদিককে বিস্মিত করে দিয়ে টাইসন বলেছেন, ‘‌বক্সিং দেখিনি।

তবে আমি জানি, টেনিসে পুয়ের্তোরিকার একটা মেয়ে তঁার দেশকে প্রথম সোনার পদক এনে দিয়েছে। সে র‌্যাঙ্কিংয়ের দু’‌নম্বর খেলোয়াড়কে হারিয়েছে।’‌ বিস্ময় ঘোচাতে বলেছেন, ‘‌এখন এটাই আমার জীবন। আমি এখন টেনিস–‌বাবা।’‌ মেয়ে খেলা শুরু করার আগে টেনিস নিয়ে বিন্দুমাত্র আগ্রহও ছিল না টাইসনের।

ইউ এস ওপেন দেখতে এসেই বলেছিলেন, ‘‌জীবনে কখনও কল্পনাও করিনি, আমি এখানে আসব।’‌ মেয়ের কারণে টেনিস খেলতে কোর্টেও নেমেছেন। তা কেমন খেলেন টাইসন?‌ নিজেই উত্তর দিয়েছেন, ‘‌জঘন্য।’‌‌

Print Friendly, PDF & Email